অন্যান্য

বাংলার কুসংস্কার:পরীক্ষার আগে ডিম খেতে নেই!!

এই কুসংস্কারটা সম্ভবত সবাই বিশেষ করে ছাত্র-ছাত্রীরা খুব ভাল জানেন।আমাদের দেশের মায়েরা নিজেদের আদরের সন্তানদের পরীক্ষার আগে আর যাই খেতে দেন ভুলেও ডিম খেতে দেন না।কারণ ডিম খেলে নাকি পরীক্ষাতেও ডিম মানে আন্ডা মানে গোল্লা মানে শূন্য পাবেন। 😥

বাংলার কুসংস্কার:পরীক্ষার আগে ডিম খেতে নেই!!
  • লৌকিক ব্যাখ্যা: এই কুসংস্কারটা সম্ভবত সবাই বিশেষ করে ছাত্র-ছাত্রীরা খুব ভাল জানেন।আমাদের দেশের মায়েরা নিজেদের আদরের সন্তানদের পরীক্ষার আগে আর যাই খেতে দেন ভুলেও ডিম খেতে দেন না।কারণ ডিম খেলে নাকি পরীক্ষাতেও ডিম মানে আন্ডা মানে গোল্লা মানে শূন্য পাবেন। 😥

  • বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা: এইটার যে কোন বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা নেই তা নিশ্চয় দেখেই বুঝতে পারছেন।কারণ এমনিতেও ডিম একটি পুষ্টিকর খাদ্য।তা বাদে পরীক্ষার নাম্বার কোনভাবেই একটা নিরীহ ডিমের উপর দেয়া যায় না।আমার মত ছাত্র হলে এমনিই গোল্লা পাবেন, তা আপনি ডিম খান বা নাই খান।তবে আমি ব্যক্তিগতভাবে একতা সমাধান দিতে পারি, তা হল ডিম=০ যদি হয়, তাহলে একটা কলা=১ আর দুইটা ডিম (অর্থাৎ দুই শূন্য)খেয়ে যান।তাহলেই ১,০,০ মানে ১০০ পেয়ে যাবেন। চেষ্টা করেন ১০০ পেলে জানাবেন। eggs

About Author

🎉 Salman Hossain Saif (internet username: Saif71).
Lead UX Engineer @ManagingLife LLC. Specialized in design systems, user flow, UX writing, and a certified accessibility specialist. Loves travel and creating meaningful content. Say hi @imsaif71