Travel

চুইঝাল + চুকনগর এর খাসির খোজে

চুইঝাল এর মাংস খুলনার খুবই বিখ্যাত একটি খাবার। চুইঝাল আসলে একটি মসলার নাম। গরু/মুরগি/ খাসির মাংস রান্না করা হয় এটি দিয়ে। একটু স্পাইসি। চলুন আজকে বেরিয়ে পরি এই চুইঝালের খোজে।

চুইঝাল + চুকনগর এর খাসির খোজে

চুইঝাল কি?

চুইঝাল এর মাংস খুলনার খুবই বিখ্যাত একটি খাবার। চুইঝাল আসলে একটি মসলার নাম। গরু/মুরগি/ খাসির মাংস রান্না করা হয় এটি দিয়ে। একটু স্পাইসি। এটি একটি গাছের বাকল থেকে তৈরী হয়। গাছ অনেকটা পান গাছের মত তবে কান্ড বেশ মোটা। কান্ড থেকে আকর্ষি বের হয়, সেই আকর্ষি রোপন করলে আবার সেটা গাছ হয়। গাছটি বড় হতে শুরু করলে সেটা কোন সুপারি, তাল অথবা নারিকেল গাছকে আশ্রয় করে বড় হতে থাকে। পূর্নাংগ হতে ৭-৮ বৎসর সময় লাগে।

চুইঝাল এর বৈজ্ঞানিক নামঃ Piper Chaba

এবারের উইকেণ্ড অভিযানে আমরা বেরিয়েছিলাম অসাধারন স্বাদের এই চুইঝাল এর মাংসের খোজে।

চুইঝাল / চুকনগর এর খাসি

কোথায় পাওয়া যায়?

খুলনা অঞ্চলে এটি বেশ জনপ্রিয়। খুলনা, সাতক্ষীরা চুকনগর, যশোর কেশবপুর বেশ কয়েকটি হোটেল এ চুই এর খাসি , গরু এবং মুরগি পাওয়া যায়। খুলনার দিকে সবচেয়ে জনপ্রিয় হচ্ছে খুলনার জিরো পয়েন্ট এ “কামরুল হোটেল” এর চুইঝাল গোশত।

আর একটি জনপ্রিয় খাবার হচ্ছে “চুকনগর এর খাসি” , এটি আসলে চুইদিয়েই রান্না করা খাসির মাংস তবে অন্যান্য কিছু মসলার ভ্যারিএশন এর জন্য এটি একটু বেশি স্বাদের। বিস্তারিত আসছি একটু পর। “চুকনগর এর খাসি” এর জন্য এখানে পপুলার হল “আব্বাস হোটেল”। মেনু শুধু ভাত খাসি। তাও মুটামুটি সব সময়ই লাঞ্চ এর সময়ে বেশ ভালোই ভীড় পাবেন।

যশোর কেশবপুর এও অনেক জায়গায় পাওয়া যায় তবে এই দুই জায়গাই বেশি জনপ্রিয়।

শুধু চুই মসলাটা খুলনা বা সাতক্ষীরা এর বেশিরভাগ বাজারেই পাবেন ৫০০-৬০০ টাকা প্রতি কেজি। ঢাকায় ও বেশ কিছু সুপার শপে ইদানিং পাওয়া যাচ্ছে চুই মসলা।

কিভাবে যাবেন?

ঢাকা থেকে খুলনাগামী বাস পাবেন কল্যানপুর বা সায়েদাবাদ থেকে। কল্যানপুর থেকে ছেড়ে যাওয়া বাস গুলো পাড় হয় সাটুরিয়া ফেরি ঘাট থেকে। আর সায়েদাবাদ থেকে ছেড়ে যাওয়া গুলো পদ্মা পার হয় মাওয়া – কাওড়াকান্দি ফেরি ঘাট থেকে।

ভাড়া নন এসি ৪০০ থেকে শুরু, এসি ৮০০ থেকে। আন্তঃজেলা বিভিন্ন বাস এর ভাড়া জেনে নিতে পারেন ভাড়া কত অ্যাপ থেকে।

অথবা ঢাকা থেকে সরাসরি ট্রেনেই যেতে পারেন।

বাস এর খুলনা রয়্যাল এর মোড়ে নেমে রিকশা বা অটো তে করে করে চলে যাবেন “খুলনা জিরো পয়েন্ট” এ । রিক্সায় বা অটো তে বললেই হবে “কামরুল হোটেল” এ যাবেন। সবাই চিনে মুটামুটি।

আর সাতক্ষীরা চুকনগর এর “আব্বাস হোটেল” এ যেত হলে খুলনার গল্লামারি থেকে বিআরটিসি বা লোকাল বাস পাবেন সরাসরি চুকনগর । ভাড়া ৪০-৫০ টাকা। চুকনগর নেমেই কাউকে বললেই দেখিয়ে দিবে আব্বাস হোটেল। (অথবা যেই হোটেল এ বেশি ভীড়, দেখবেন ঐটাই আব্বাস হোটেল )


খেতে কেমন?

স্বাদ আসলে লিখে কখনই বোঝানো যায় নাহ। চুই দিয়ে রান্না করা মাংস একটু ঝাল হয়। ঝোল্টা একটু আচারি টাইপের। “কামরুল হোটেল” এ গরুটা বেশি মজা , খাসি বা মুরগির তুলোনায়। সাথে একটা চিংড়ি ভর্তা পাওয়া যায় এখানে, খুবই ঝাল। বেশ স্বাদের।

খাসিঃ ১১০/- গরুঃ ১০০/- মুরগিঃ ৭০/-

চুকনগর এ শুধু মাত্র সাদা ভাত আর খাসিই পাবেন। সিগ্নেচার নেইম “চুকনগর এর খাসি”। এটায় কিছু একটা মসলা এক্সট্রা দেয় যার কারনে একটু বেশি টেষ্টি। কি দেয় আমি আসলে জানি না। একটা আস্ত রসুন পাবেন মাংসে। দুই জায়গাতেই একটা বোলে করে মাংস নিয়ে আসবে এবং আপনার পছন্দ অনুযায়ী পিস প্লেট এ দিয়ে যাবে।

খাসি ১০০-১১০ /-

তো আর অপেক্ষা কেনো ? সময় করে একদিন বেড়িয়ে পড়ুন অনন্য স্বাদের চুইঝাল এর মাংসের স্বাদ নিতে। আমাদের দেশটা আসলে অনেক সুন্দর, আনাচে কানাচে লুকিয়ে আছে অনেক সৌন্দোর্য , অনেক রহস্য। ঘুড়ে আসুন যখনই সময় পান। নাগরিক যান্ত্রিকতার ক্লান্তি অনেকটাই কেটে যাবে এই দেশটা ঘুড়লে। আর প্রকৃতিকে তার মত থাকতে দিন। ঘুরতে গিয়ে কোথাও ময়লা আবর্জনা ফেলবেন না। ভালো থাকবেন সবাই।

[টপিকঃ খুলনা, চুইঝাল, চুইঝাল কোথায় পাবেন, খুলনায় কি খাব, ]

About Author

🎉 Salman Hossain Saif (internet username: Saif71).
Lead UX Engineer @ManagingLife LLC. Specialized in design systems, user flow, UX writing, and a certified accessibility specialist. Loves travel and creating meaningful content. Say hi @imsaif71